4.8 C
New York
Thursday, December 5, 2019
Home বড় গল্প "স্বামী নির্যাতন" অতঃপর ভালোবাসা "স্বামী নির্যাতন" অতঃপর ভালোবাসা part 1

“স্বামী নির্যাতন” অতঃপর ভালোবাসা part 1

“স্বামী নির্যাতন” অতঃপর ভালোবাসা part 1

হিংসুটে ছেলে

!

!

—কই যাও।
—বাপের বাড়ি।
—আমিও যাবো।
—কই যাবা।
—তোমার বাপের বাড়ি।
—ঐটাতো আমার বাপের বাড়ি।
—ঐটাতো আমারো শ্বশুর বাড়ি।
—আগে আমার বাপের বাড়ি।
—পরে আমার শ্বশুর বাড়ি।
—তুমি যা বা না।
—আমি যা বো।
—বলছি না।
—আমি বলছি হ্যা।
—যাও তাহলে।
—যাবোই তো।
—আমি যাবো না।
—আমিও যাবো না।
—কেন? তোমার তো শ্বশুর বাড়ি।
—তোমারও তো বাপের বাড়ি।
—তোমাকে এখন যেতেই হবে। যাও।
—তুমি যাও।
—তুমি যাবে এটাই ফাইনাল।
—আমি যাবো না।
—ঠিকা আছে তাহলে তুমি থাকো।
আমিই যাবো।
—তাহলে আমিও যাবো।
—চোখ তুলে ফেলবো, আমার পেছন
পেছন আসলে।
—তাহলে লোকে তোমাকেই কানার
বউ বলবে।
—বলুক। তাতে তোমার কি? আমি
তোমার কে?
—তুমি আমার বউ। তুমিই তো আমার সব।
—এহ! আর দরদ দেখাতে হবে না। তুমি
যাচ্ছো না।
,
,
বলেই লাগেজটা নিয়ে বেরিয়ে
গেল অবন্তিকা। আমি আর পিছু নিলাম
না। কারন জানি আমি ওর পিছু নিলে
রাস্তায় কি করে বসে তার ঠিক নেই।
ওর রাগটা একটু বেশিই। কিন্তু ওকে
ছেড়ে একা থাকাও সম্ভব না। তাই ওর
পিছু না নিলেও পরের বাসেই আমি
রওনা দিলাম। উদ্দেশ্য ময়মনসিংহ।
অবন্তিকার বাপের বাড়ি, আর আমার
শ্বশুর বাড়ি।
এসে পড়েছি মাসকান্দা বাসস্ট্যান্ড।
ঐ তো অবন্তিকা দাড়িয়ে আছে। ও
জানতো আমি আসবোই। কথা না
বাড়িয়ে ওকে নিয়ে অটোতে চড়ে
শ্বশুর বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দিলাম।
এসে পড়েছি শ্বশুরবাড়ি। আমার
শালিকা অনামিকা আগিয়ে আসছে
আমাদের নিতে। আমি আমার বউকে
রাগাতেই ওর দিকে হা করে
তাকিয়ে থাকলাম।
,
,
—দুলাভাই কি দেখেন?
—তোমাকে।
—আমাকে দেখার কি আছে?
—তুমি আগের থেকে অনেক সুন্দর হইছো।
—থেংকু।
—ওয়েল……
,
শেষ না হতেই আমার হাত ধরে নিজের
রুমে নিয়ে গেলো অবন্তিকা। চোখে-
মুখে রাগের ভাব।
,
—কি হলো।
—কি হয় নাই।
—কি হবে?
—অনুর (অনামিকার সংক্ষিপ্ত) এভাবে
তাকিয়ে ছিলে কেন?
—তো কি হয়েছে?
—ও আমার বোন।
—আমার শালী।
—তাই বলে তাকিয়ে থাকতে হবে?
—থাকবোই তো তোমার কি?
—আমার কি মানে? আমি তোমার বউ।
—এহ! বউ। যে বউ নিজের স্বামীকে
একা ফেলে চলে আসে সে নাকি বউ?
—আমি কখন তোমাকে রেখে চলে
আসলাম?
—আসোনি? আমাকে রেখে চলে
আসোনি?
—আমি জানতাম তুমি আসবেই তাই
চলে এসেছি। কিন্তু বাড়িতে তো
একা আসিনি। তোমার জন্যই তো
একঘন্টা দাড়িয়ে ছিলাম
বাসস্ট্যান্ডে।
—আমি তো ভালোবাসি বলে এসছি।
আর তুমি রাস্তা চিননা বলে দাড়িয়ে
ছিলে।
—কি আমার বাড়ির রাস্তা আমি
চিনি না।
—চেনই না তো। বার বার আমাকে
নিয়ে আসতে হয়।
—ভালো হইছে আমাকে আর নিয়ে
আসতে হবে না।
—কেন? তুমি একা একা আসবে?
—না। আমি আর যাবোই না। তাহলে
আসাও লাগবে না।
—কি হলো সত্যিই রাগ করলে নাকি?
আরে আমিতো মজা করছিলাম। আসলে
আমি তোমাকে অনেক………

চলবে….???

MD SHARIF SORKAR
পৃথিবীর নিয়ম বড়ই অদ্ভুত। যাকে তুমি সবচেয়ে বেশি ভালবাসো, সেই তোমার দুঃখের কারন হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

রুমাল, শেষ পর্ব।

#রুমাল, শেষ পর্ব। মদ্যপ ও একাধিক নারীর সাথে আপত্তিকর অবস্থায় মাস্কো প্লাজার পেছনের ফ্ল্যাটের তেরো নম্বর রুম থেকে ডিবি পুলিশের দেয়া ইনফরমেশন অনুযায়ী আটক করা...

রুমাল, পর্বঃ০৪

#রুমাল, পর্বঃ০৪ খবর শুনেছেন? জহিরের গলাকাটা লাশ পাওয়া গেছে মিরসরাইয়ে। শাহরিয়ার খবরের কাগজ থেকে চোখ সরিয়ে বলল,কি বলেন স্যার! কেস তো তবে জটিল হয়ে গেল।মোস্তাক...

গল্পঃআলেয়া। 

গল্পঃআলেয়া। Borhan uddin ওস্তাদজী আছে কি? নুরুন্নাহারের ধবধবে অর্ধনগ্ন পিঠখানা নজরে আসতেই মাথা নিচু করে নেয় ওবায়েদ ।গোসল সেরে আসা নুরুন্নাহার ওবায়েদের দিকে মুখ ঘুরিয়ে ভেজা...

গল্পঃরুমাল, পর্বঃ০৩

গল্পঃরুমাল, পর্বঃ০৩ মাস দুয়েক পেরিয়ে যাবার পরেও জহিরের কোন খোঁজ পাওয়া যায়নি। তুরস্ক থেকে যে বিষের কৌটা আনা হয়েছিল চট্টগ্রামে সে বিষয়ে খোঁজ চলছে এখনো।শাহরিয়ারের...

Recent Comments